Untitled

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের স্লুইচ গেইট বাজার জামে মসজিদ থেকে ১১ খানা কোরআন শরীফ চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরির অভিযোগে ২ মাদরাসা ছাত্রকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।

 

 

আটককৃত দুই ছাত্র হলেন- বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের দিয়ারা গ্রামের মামুন মোল্লার ছেলে মেহেদী হাসান (১৮) ও পাংশা উপজেলার কসবামাঝাইল ইউনিয়নের সুবর্ণকোলা গ্রামের আকমদ্দিন মিয়ার ছেলে তাওহিদুল ইসলাম (১৯)। তাদেরকে সোমবার (৩ এপ্রিল) রাজবাড়ী আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

 

আরও পড়ুন… চলমান লকডাউনের মেয়াদ বাড়ছে ১৬ মে পর্যন্ত

 

 

এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা যায়, গত রোববার (২ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে ওই দুই ছাত্র একটি মোটরসাইকেলে করে মসজিদে ঢুকে ১১ খানা কুরআন শরীফ ব্যাগে ভর্তি করে পালিয়ে যায়। পরে কুরআন শরীফগুলো বিভিন্ন গ্রামে কম দামে তারা বিক্রি করে।

 

 

সন্ধ্যায় একই সড়ক দিয়ে বালিয়াকান্দি উপজেলা সদর বাজারের দিকে যাওয়ার পথে স্লুইচ গেইট বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী গোলাপ ফকির তাদেরকে আটক করে। এসময় এলাকার লোকজন মসজিদের ইমাম নুরুল ইসলামকে খবর দেন। ইমাম ও এলাকার লোকজনের জিজ্ঞাসাবাদে কুরআন শরীফ চুরি করে বিক্রির বিষয়টি স্বীকার করেন তারা।

 

 

লোকজন রাত সাড়ে ৮টার দিকে অভিযুক্ত দুই ছাত্রকে পুলিশে সোপর্দ করে। ওই দুই ছাত্র ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার বরিয়া দারুল উলুম মাদরাসার ছাত্র। তারা গেলো একমাস যাবত বিভিন্ন উপজেলার গ্রামের মসজিদে ঢুকে কোরআন শরীফ ও অন্যান্য সামগ্রী চুরি করে বিক্রি করতেন বলে স্বীকার করেন। পুলিশ সোমবার তাওহিদুল ইসলাম ও মেহেদী হাসানকে আদালতে প্রেরণ করেছে।

 

 

এমআই

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *